• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ৬ই অক্টোবর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ২১শে আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
প্রকাশিত: ১৭ মে, ২০২২
সর্বশেষ আপডেট : ১৭ মে, ২০২২

সুইডেনের ন্যাটো সদস্য হওয়ার পরিকল্পনায় বাধা দেবে তুরস্ক

নিজস্ব প্রতিনিধি

আগামী কয়েক দিনের মধ্যে ন্যাটো সদস্য পদ পেতে আনুষ্ঠানিকভাবে আবেদন করবে সুইডেন। গতকাল সোমবার দেশটির প্রধানমন্ত্রী ম্যাগডালেনা এন্ডারসন এতথ্য জানিয়েছেন। তবে ফিনল্যান্ড এবং সুইডেনের সদস্য হওয়ার অনুমোদন প্রক্রিয়া বাধাগ্রস্ত হবে।

ন্যাটো সদস্য রাষ্ট্র তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়্যেব এরদোয়ান জানিয়েছেন তিনি দুই দেশের কারোরই সদস্য হওয়ার আবেদনে সাড়া দেবেন না। ন্যাটো সদস্য হতে গেলে ফিনল্যান্ড ও সুইডেনের জোটের ৩০ দেশের সবারই অনুমোদন প্রয়োজন পড়বে। অনুমোদন প্রক্রিয়া এক বছরের বেশি সময় ধরে চলতে পারে। তবে তুরস্কের বিরোধিতায় সেই অনুমোদন নিয়েও সন্দেহ তৈরি হয়েছে।

এক সংবাদ সম্মেলনে প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়্যেব এরদোয়ান বলেন, ন্যাটো সদস্য হওয়ার আবেদনে সম্মতির জন্য রাজি করাতে সুইডেন ও ফিনল্যান্ডের আঙ্কারায় প্রতিনিধি পাঠানো উচিত হবে না। তিনি বলেন, ‘এই দেশগুলোর কারোরই সন্ত্রাসী গোষ্ঠীর বিষয়ে স্পষ্ট এবং প্রকাশ্য মনোভাব নেই।’ সুইডেনকে সন্ত্রাসী গোষ্ঠীর ‘হ্যাচারি’ আখ্যা দেন তুরস্কের প্রেসিডেন্ট। তিনি বলেন, দেশটির পার্লামেন্টেও সন্ত্রাসী রয়েছে। ইউক্রেনে রুশ আগ্রাসনের জেরে ইউরোপের নিরাপত্তা প্রকৌশল নড়বড়ে হয়েছে। ফলে স্নায়ু যুদ্ধের আমলে বাইরে থাকলও এখন সুইডেন ও ফিনল্যান্ড যুক্তরাষ্ট্রের নেতৃত্বাধীন ন্যাটো জোটে যোগ দিতে বাধ্য হচ্ছে।

সুইডেনের সোস্যাল ডেমোক্র্যাট সরকার আবেদন বিবেচিত হওয়ার মধ্যেই দেশের দুর্বলতা নিয়ে উদ্বিগ্ন হয়ে পড়েছে। তারা আবেদন যাচাই প্রক্রিয়া দ্রুত সম্পন্ন করতে ন্যাটো জোটের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে। প্রাথমিকভাবে ন্যাটো নেতারা ভেবেছিলেন তুরস্কের বিরোধিতা বড় কোনও বিলম্বের কারণ হবে না। কিন্তু এখন দেখা যাচ্ছে তা মারাত্মক বাধা হয়ে দাঁড়াচ্ছে। সূত্র: রয়টার্স

আরও পড়ুন